মেনু নির্বাচন করুন

ইকো পার্ক

বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে বনবিভাগ কর্তৃক ১২০ একর জায়গার উপর ২০০৭ ইং সনে ইকোপার্ক স্থাপিত হয়েছে। এখানে পিকনিক স্পটসহ মিনি চিড়িয়াখানা রয়েছে। দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলসহ বিভিন্ন এলাকাহতে প্রচুর সংখ্যক দর্শনার্থী এ পার্কে বিনোদনের জন্য এসে থাকে। সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতুর কোল ঘেঁষে প্রায় ৬০০ একর জায়গার ওপরে গড়ে উঠেছে প্রাকৃতিক-নৈসর্গিক সৌন্দর্যমণ্ডিত বঙ্গবন্ধু যমুনা ইকোপার্ক। যা সিরাজগঞ্জ জেলাসহ উত্তরবঙ্গের বিনোদনপ্রেমীদের একটি অন্যতম প্রধান বিনোদন কেন্দ্র।

২০০৮ সালের ৯ মার্চ পার্কটি উদ্বোধনের পর থেকেই ধীরে ধীরে তা আকৃষ্ট করতে শুরু করেছে প্রকৃতি ও ভ্রমণপ্রেমীদের।

বিভিন্ন প্রকার ফলদ, বনজ ও ঔষধি গাছের সমারোহে গড়ে তোলা হয়েছে পার্কটি।পরিকল্পিতভাবে ঘুরতে গেলে একদিনের মধ্যে সিরাজগঞ্জ জেলার বেশিরভাগ পর্যটন এলাকা দেখা সম্ভব। শহরে ও হাইওয়ের ওপরে ৩০০ টাকা থেকে শুরু করে ২৫০০ টাকায় বিভিন্ন হোটেলে থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। শহরে ঘুরতে গেলে পর্যটকরা সিরাজগঞ্জের মিষ্টি, দই, তাঁতের তৈরি লুঙ্গি-শাড়ি ও গামছা কিনতে ভুল করেন না।

কিভাবে যাওয়া যায়:

সিরাজগঞ্জ শহর হতে দক্ষিনে প্রায় ০৮ কি.মি বাসযোগে যেতে হবে । 

ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী যেকোনো বাসে বঙ্গবন্ধু-যমুনা সেতু পেরিয়েই ইকোপার্কের অবস্থান। আর উত্তরবঙ্গের যেকোনো জেলা থেকে এলে সিরাজগঞ্জ রোড পেরিয়ে কড্ডার মোড়ের পরেই এই ইকোপার্ক। ট্রেনে এলে যমুনা সেতু পশ্চিম স্টেশনে নামতে হবে। পুরো ইকোপার্ক ঘুরতে ২/৩ ঘন্টার বেশী সময় লাগার কথা না।

 


Share with :

Facebook Twitter